July 24, 2024, 6:05 am
শিরোনামঃ
কোটা সংস্কার আন্দোলনের নামে স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির দেশব্যাপী নৈরাজ্য প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের মানববন্ধন উলিপুরের থেথরাই বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষকের মৃ/ত্যু : লাখো মানুষের ভীর শাহজাদপুরে দেশী মদের দোকান সিলগালা করায় মুসল্লিদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ জামালপুর জেলায় ধান – চাউল সংগ্রহের চিত্র ২টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ২০৬ রাউন্ড গুলিসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে সিটিটিসি ১৬২ সদস্যকে ডিএমপির কল্যাণ তহবিল হতে আর্থিক অনুদান প্রদান উপবৃত্তির অর্থ পাইয়ে দিতে প্রতারণার ফাঁদ, মাউশির জরুরি বিজ্ঞপ্তি বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার পেলেন ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি”র ওসি ফারুক হোসেন ঘুরেফিরে প্রভাবশালীরা ঢাকায়, গণপূর্তের ৫ নির্বাহী প্রকৌশলীর বদলি সিটিসি ডা: গোলাম রব্বানীই শেষ কথা: প্রাণিসম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্পে কসাইখানা নির্মাণে ভয়াবহ দুর্নীতি
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

বগুড়ার ১৫ মামলার পলাতক আসামী ৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত লালু গ্রেফতার

Reporter Name

(এনকে সূর্য্য) স্টাফ রিপোর্টারঃ

বগুড়া সদর উপজেলার সাবগ্রাম চান্দুপাড়া গ্রামের ইয়াদ আলীর পুত্র ০৫ বছরের সাজাভূক্ত এবং ১৫ মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত পলাতক আসামী আমিনুল ইসলাম লালুকে (৪৫) খুলনা জেলার খালিশপুর থেকে গ্রেফতার করেন বগুড়া সদর থানার পুলিশ।

উক্ত আসামীকে বগুড়া সদর থানার সার্কেল এএসপি সরাফত ইসলাম ও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নূরে আলম সিদ্দিকীর দিক নির্দেশনায় সদর থানার এসআই জাকির আল আহসানের নেতৃত্বে গত ২৬শে অক্টোবর-২২ইং তারিখ মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গ্রেফতার করা হয়।

উক্ত মামলা সূত্রে জানা যায়,আসামীর নামে ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমডি বগুড়া ট্রেডিং কোম্পানি লিঃ নামে একটি প্রতিষ্ঠান ছিল। সেই প্রতিষ্ঠানের নামে প্রথমে তিনি অত্র এলাকায় একটি সার কারখানার ব্যবসা,পরবর্তীতে পাথর ব্যবসা,এয়ারলাইন্সেস ট্রাভেলিং এজেন্সি ব্যবসাসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা করে আসছিল খুলনা,ঢাকা ফরিদপুর চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন জেলার সাথে।

উক্ত আসামী সাবগ্রাম ইউনিয়ন হতে গত ২০০৯ইং সালে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে নির্বাচন করে এবং সেই নির্বাচনে দ্বিতীয় নির্বাচিত হয়। উক্ত নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর অনেক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়, তৎপরবর্তীতে ওই সব ব্যবসা গুলো সঠিক ভাবে করতে না পারায় প্রায় দেড় কোটি টাকার প্রতারণা করে ২০১০ইং সালে তিনি আত্ম গোপনে চলে যায় এবং পরবর্তীতে বিভিন্ন ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান উক্ত আসামীর বিরুদ্ধে থানায় ও বিজ্ঞ আদালতে একাধিক মামলা মোকদ্দমা দায়ের করে।

সেই সব মামলা মোকদ্দমার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত উক্ত আসামীকে ০৫ বছরের সাজা প্রদান করে এবং আরো ১৫ মামলায় তার বিরুদ্ধে ওয়ারেন্টসহ মামলা চলমান আছে। বর্তমানে উক্ত আসামী খুলনা জেলার খালিশপুর এলাকায় পানির ফিল্টারের ব্যবসা করে আরছিল।

এবিষয়ে বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নূরে আলম সিদ্দিকীর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান যে,উক্ত আসামীকে খুলনা জেলার খালিশপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় এবং বগুড়া সদর থানায় নিয়ে এসে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয় মর্মে জানা যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page