February 22, 2024, 3:16 am
শিরোনামঃ
শহিদ মিনারে বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের শ্রদ্ধা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি স্থলে জেলা পুলিশের পক্ষে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন শহিদ মিনারে পুনাক ও বিপিডব্লিউএন এর শ্রদ্ধা জামালপুর ও নেত্রকোনা জেলা খাদ্য বিভাগে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি একুশের প্রথম প্রহরে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশের শ্রদ্ধা চন্দ্রগঞ্জ থানা বিশেষ অভিযানে ১২৫০ পিছ ইয়াবা ৫০০ গ্রাম গাজাসহ গ্রেফতার ১ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ শটপিচ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন গোলাম ফারুক পিংকু এমপি একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২:০১ মিনিটে ভাষা শহীদদের প্রতি জেলা পুলিশের শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন ভাষা আন্দোলন বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তি রচনা করেছিল– রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য ভাষা শহীদদের প্রতি আইজিপি, ডিএমপি কমিশনারের শ্রদ্ধা
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

অফ দা খালের রাত্রে অন্ধকারে মাটি কাটা অভিযোগ ভূমি দস্যু হৃদয় ও সোহেলের বিরুদ্ধে

Reporter Name

নিজস্ব প্রতিবেদন – লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চন্দ্রগঞ্জ থানার অধীনে ১২ নং চরশাহী ইউনিয়ন ১ নং ওয়ার্ড দক্ষিণ নুরুল্লাপুর গ্রামে অফদার খাল থেকে রাত্রের অন্ধকারে মাটি কাটার অভিযোগ তুলেছিলে এলাকা বাসী।

অনুসন্ধানের জানাজায় এই আব্দুল বাতেন সোহেলকে তিনি হলেন।সমাজসেবক রাজনীতিবিদ ওয়ার্ড আওয়া মী লীগের সাধারণ সম্পাদক,দিনের আলোতে সমাজ সেবক মানব সেবায় কাজ করে। রাত্রে অন্ধকারে ভূমি দস্যুদের মত বেকু দিয়ে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ারঅভি যোগ হাজার জনগণের।দুঃখজনক ঘটনা একজনআও য়ামী লীগ পরিবারের সদস্য হয়ে সরকারি খাল গুলো কিভাবে কেটে নিয়ে যায়।

অন্যদিকে দিনের পর দিন কৃষি জমির নষ্ট মাটিরকেটে নিয়ে যায় তার ক্ষমতার দাপটে কৃষকেরা তার বিরুদ্ধে কিছু বলতে পারেনা।বললে আইনের ক্ষমতা দেখিয়ে তাদেরকে হস্তান্ত করে থাকে সুস্থ তদন্তের ভিত্তিতে এই আব্দুল বাতেন সোহেলের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হোক।

এ সময় সাধারণ জনগণ বলে চরশাহী ইউনিয়ন চেয়ার ম্যান জাহাঙ্গীর আলম রাজু ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে রাত্রের অন্ধকারে বেকু দিয়ে মাটি কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ তুলেছে। কেউ তার বিরুদ্ধে কথা বলতেপার ছে না।কিছু হলে চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করে।এতে এলাকার মানুষ হয়রানি হয়ে তাই এই ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হোক।

ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তোশিলদার খুজে না পাওয়া তার সহকারীর সাথে কথা বলার সময় সরকারি মাটিকা টা খুবই ন্যাকড়ার জনক ঘটনা।সুস্থ তদন্তের ভিত্তিতে অপরাধী সে যে হোক না কেন আইনের আওতায় আন তে হবে। সরকারি মাটি কাটার সাবাস সে পাইলো কই অনুসন্ধানে জানা যায়,তিনি চেয়ারম্যানের বডিগার্ডহয়ে এলাকায় অবৈধ মাটি কাটে নিয়ে যায়।বাধা দেওয়ার মত কেউ নেই।

খালের মাটি কাটার বিষয় চেয়ারম্যান কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,এই সম্পর্কে আমি কিছুই জানিনা যারা মাটি কেটে নিয়ে জেগেছে সুস্থ তদন্তের ভিত্তিতে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page