May 26, 2024, 8:02 am
শিরোনামঃ
ডিআরইউ সদস্য সন্তানদের সাঁতার প্রশিক্ষণ কার্যক্রম-২০২৪ শুরু মাত্র ৫০০০ টাকার বিনিময়ে এমপি আনারের দেহ ৮০ টুকরো করা হয়, কসাই জিহাদের স্বীকারোক্তি দেশে ফিরে থলের বিড়াল বের করে দেব: নিপুণ বিনোদন প্রতিবেদক কুড়িগ্রামে অসহায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নুর নবী পরিবার নিয়ে চরম দুর্ভোগে দিনাতিপাত করছে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মন্ত্রণালয়ের সব প্রস্তুতি রয়েছে – দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর হামলা, থানায় অভিযোগ দায়ের ডিএমপি সদস্যদের অগ্নিনির্বাপণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত এমপি আনারকে হত্যার পর হাড় ও মাংস আলাদা করে হলুদ মেশানো হয়’ মানবতার সেবায় নিয়োজিত আনার নিজেই চালাতেন অ্যাম্বুলেন্স কলকাতায় এমপি আনার খুন, দেশে আটক ৩
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

উলিপুরে কমিউনিটি ক্লিনিক দুর্নীতির স্বর্গরাজ্য দেখার যেন কেউ নেই

Reporter Name

নয়ন দাস,কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে চরাঞ্চলে সরকারি ক্লিনিক তালাবদ্ধ অবস্থায় থাকায় বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হয়েছে স্থানিয়রা। আজ রবিবার ২৫ শে সেপ্টেম্বর ২০২২ইং দুপুর ১২ টায় উলিপুর উপজেলার ১২ নং বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের আকেল মামুদ সরকারি কমিউনিটি ক্লিনিকটি তালাবন্ধ দেখাযায় ।

এ বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হলে স্থানীয় বাসিন্দা রাশেদুল,আইজল,ডাক্তার খয়বর আলী রাজা,সামাদ, মরিয়ম,সহ অনেকে জানান ক্লিনিকটি নিয়মিত খোলা না থাকায় বিনামূল্যে চিকিৎসা ও পরিবার পরিকল্পনা সেবা কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হয়েছে সাধারণ জনগণ।

প্রতিদিন অফিস খোলাথাকা সময়পর্যন্ত পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন গ্রামের লোকজন মা ও শিশু ক্লিনিকের স্বাস্থ্য সেবা নিতে আসেন কর্তব্যরত লোক না থাকায় এবং তালাবদ্ধ থাকায় চিকিৎসা সেবা নিতে এসে শূন্য হাতে তাদের বাড়ি ফিরে যেতে হয়।দীর্ঘদিন থেকে এমন অবস্থা হলেও দেখার যেন কেউ নেই।

বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আকতার হোসেন সত্যতা স্বীকার করেন।উক্ত ক্লিনিকের বর্তমান সভাপতি ও ইউপি সদস্য শফিকুল ইসলাম দুঃখ প্রকাশ করে জানান,বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছেনা সাধারন জনগন আমি নিজ চোখে দেখা তালাবদ্ধ ছাড়া ক্লিনিকটি খোলা দেখতে পাইনি।

বেগমগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান বাবলু মিয়া সত্যতা স্বীকার করে জানান, অত্র ক্লিনিক সহ আমার ইউনিয়নের ২নংওয়াড বেগমগঞ্জ ক্লিনিক ও ৫নংওয়ার্ড আফতাবগঞ্জ ক্লিনিকের একই অবস্থা । বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের এ, এইচ, আই, সাজু মিয়া ও পঃপঃইউনিয়ন ভিজিটর কামাল হোসেনের দায়সারা ভাবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বছরে দুই একদিন জাতীয় কোন প্রোগ্রামে উপস্থিত থাকলেও আর তাদের দেখা পাওয়া যায়না।

মাঠ পর্যায়ে তদারকি করেননা না বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন।আকেল মামুদ কমিউনিটিক্লিনিকের দায়িত্বরত সি,এইচ,সিপি,মুঠোফোনে জানান চরাঞ্চলের কারণে এরকম হয়।এ ক্লিনিকে দায়িত্বে আছেন স্থানীয় বাসিন্দা স্বাস্থ্য সহকারি আঃমালেক ও পঃপঃআনোয়ারা। তিনি জানান ঔষধ পারাপার করতেছি আগামীকাল ক্লিনিকে আসেন সাক্ষাতে কথা হবে।

এ ব্যাপারে উলিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মেজ কাতুল আবেদকে বিষয়টি মুঠোফোনে অবগত করা হলে তিনি বিষয়টি জানা নেই। আমি সবেমাত্র যোগদান করেছি তবে খোঁজখবর নেবেন এবং চেয়ারম্যান কর্তৃক অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page