May 26, 2024, 5:13 pm
শিরোনামঃ
উপকূলে ৮-১২ ফুট জলোচ্ছ্বাস, পাহাড়ে হতে পারে ভূমিধস সব মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল ডিআরইউ সদস্য সন্তানদের সাঁতার প্রশিক্ষণ কার্যক্রম-২০২৪ শুরু মাত্র ৫০০০ টাকার বিনিময়ে এমপি আনারের দেহ ৮০ টুকরো করা হয়, কসাই জিহাদের স্বীকারোক্তি দেশে ফিরে থলের বিড়াল বের করে দেব: নিপুণ বিনোদন প্রতিবেদক কুড়িগ্রামে অসহায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নুর নবী পরিবার নিয়ে চরম দুর্ভোগে দিনাতিপাত করছে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মন্ত্রণালয়ের সব প্রস্তুতি রয়েছে – দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর হামলা, থানায় অভিযোগ দায়ের ডিএমপি সদস্যদের অগ্নিনির্বাপণ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত এমপি আনারকে হত্যার পর হাড় ও মাংস আলাদা করে হলুদ মেশানো হয়’
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

গঙ্গাচড়া উপজেলার নামকরণের ইতিহাস

Reporter Name

সানজিম মিয়া – রংপুর প্রতিনিধি

জনশ্রুতি ছাড়া গঙ্গাচড়া নামকরণ সম্পর্কে কোন ঐতিহাসিক ভিত্তি নেই। নামের বিষয়ে অনেকগুলো জনশ্রুতি রয়েছে। সর্বাধিক প্রচলিত জনশ্রুতি হচ্ছে – প্রাচীন আমলে লোকেরা বিশেষ করে।হিন্দু ধর্মাব লম্বী জনগোষ্ঠী নদী মাত্রই তাকে মা গঙ্গা হিসেবে শ্রদ্ধা জানাতো এবং পূজা করতো।

গঙ্গাচড়া তিস্তা নদীর তীরবর্তী একটি উপজেলা এবং যে তিস্তার বিশাল জেগে ওঠা চোরের সৃষ্টি তা সহজেই অনুমেয়। মা ‘গঙ্গা’ বা তিস্তা নদীর বড় বড় ‘চর’ থেকে “গঙ্গাচর’’ নামের উৎপত্তি যা কালের বিবর্তনে “গঙ্গাচড়া’’ নাম ধারণ করেছে।

অপর এক জনশ্রুতি মতে, উপজেলার বর্তমান অবস্থানে এক সময় এক বৃহৎ নদী ছিল সেই নদীটি স্থানীয়ভাবে ‘গাঙ’ নামে পরিচিত ছিল। পরবর্তীতে উক্ত নদীতে একটি চর জেগে উঠে। চরটি “গাঙচর’’ নামে পরিচিতি পায়। “গাঙচর’’ থেকে কালের প্রবাহে গঙ্গাচড়া নামটির উৎপত্তি হয়।

তথ্যসূত্র :
মহান স্বাধীনতা দিবসে মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদ প্রকাশিত স্মরণিকা ‘রক্তিম সূর্য’: প্রকাশকাল ১৯৯৮ ইং।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page