March 3, 2024, 3:57 pm
শিরোনামঃ
মাদক কারবারী ও সন্ত্রাসী,কোন অপরাধীকেই ছাড় দেওয়া হবে না- ওসি মাইন উদ্দিন গণপূর্তের দুর্নীতির মাষ্টার তিনি শাস্তি পাওয়ার বদলে মিলেছে প্রাইজ পোষ্টিং ওয়াসার পিপিআই প্রকল্প লুটপাটের মুলহোতা হাসিবুল হাসান নির্দোষ দাবি করেছেন লক্ষ্মীপুরের মাও লুৎফর রহমান আর নেই জেলের ভেসে উঠলো দিনমজুরের জামাল শিকারীর লাশ অভিনব কায়দায় প্রতারণার মাধ্যমে জমি লিখে নিলেন দেলোয়ার হোসেন ও কফিল উদ্দিন নামের দুই শিক্ষক বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা অজিত রঞ্জন বড়ুয়া কে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক রাষ্ট্রীয়ভা‌বে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় ৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪১ হাজার ৯০০ কোটি টাকা – সংসদে অর্থমন্ত্রী ডিএমপির অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার ৬৪ মাদকসহ আসামী ছিনিয়ে নেয়া সেই যুবলীগ নেতা র‍্যাব-৩ হাতে গ্রেফতার
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

জাজিরা গৃহবধুর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করার অভিযোগ আল-জাবের রেস্টুরেন্টের বিরুদ্ধে

Reporter Name

রাশেদুল ইসলাম রিয়াদ জাজিরা (শরীয়তপুর)

শরীয়তপুরের  জাজিরা উপজেলার পদ্মাসেতু দক্ষিন থানা এলাকায় আল জাবের হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টে এক গৃহ বধূ হেনস্তার শিকার হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার (২৭জুলাই)  আনুমানিক দূপুর ২টার সময় জাজিরা উপজেলার পশ্চিম নাওডোবা ইউনিয়নের গোলচত্ত্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা জায়, চাঁদপুর থেকে হাবিবুর রহমান নামে এক ভ্রমন পিয়াসি তার স্ত্রী ও ভাগ্নেকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের পদ্মাসেতু দেখতে এসে নাওডোবার গোলচত্বরে জাহাঙ্গীর মুন্সির আল জাবের হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টে দুপরের খাবার খেতে আসে। এক পর্যায়ে ঐ রেস্টুরেন্টে তার স্ত্রী টয়লেটে গেলে আল জাবের হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টের এক কর্মচারী তার মোবাইল ফোনে তা ধারন করেন।

ভুক্তভোগীর স্ত্রী টের পেয়ে টয়লেট থেকে বের হয়ে তার স্বামীকে বিস্তারিত বলেন। তখন আশপাশের লোকজন জড়ো হলে ঐ কর্মচারীর মোবাইলে ভিডিও করার সত্যতা পায়।রেস্টুরেন্টের মালিক জাহাঙ্গীর মুন্সি ঘটনার সত্যতা পেয়ে  দুই একটি চড় থাপ্পর দিয়ে ভিডিও ধারনকারীকে সরিয়ে দেয় এবং ভুক্তভোগীদের কাছে মাফ চায়।

তবে এ বিষয়ে ভুক্তভোগীরা বলেন, আমারা শুনেছি নাওডোবার এলাকার মানুষ খুব ভদ্র আচরন করেন অথিতিদের সাথে। তাই চাঁদপুর থেকে  বঙ্গবন্ধুর সপ্নের পদ্মাসেতু দেখতে এসেছিলাম এসে এরকম হেনস্তার শিকার  হবো ভাবতে পারিনি।আমরা প্রশাসনের কাছে এর সর্বোচ্চ শাস্তি চাই,না হয় এরকম ঘটনা ভবিষ্যতে আরও ঘটতে পারে।

উক্ত বিষয় সম্পর্কে হোটেল মালিক জাহাঙ্গীর মুন্সি বলেন,আমার রেস্টুরেন্টে এরকম কোনো ঘটনা ঘটে নি। কোনো কুচক্রী মহলের লোকজন আমাদের রেস্টুরেন্টের বদনাম করার জন্য এরকম মিথ্যা অভিযোগ এনেছে।

পশ্চিম নাওডোবা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলমগীর ঢালী বলেন, উক্ত বিষয় সম্পর্কে আমি শুনেছি। তবে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি। হোটেল কর্তৃপক্ষ উক্ত অভিযোগের বিষয় সম্পর্কে অস্বীকার করেছেন।

পদ্মা দক্ষিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) এমারত হোসেন বলেন, আমি উক্ত বিষয় সম্পর্কে শুনেছি। তবে আমার কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page