March 3, 2024, 3:17 pm
শিরোনামঃ
মাদক কারবারী ও সন্ত্রাসী,কোন অপরাধীকেই ছাড় দেওয়া হবে না- ওসি মাইন উদ্দিন গণপূর্তের দুর্নীতির মাষ্টার তিনি শাস্তি পাওয়ার বদলে মিলেছে প্রাইজ পোষ্টিং ওয়াসার পিপিআই প্রকল্প লুটপাটের মুলহোতা হাসিবুল হাসান নির্দোষ দাবি করেছেন লক্ষ্মীপুরের মাও লুৎফর রহমান আর নেই জেলের ভেসে উঠলো দিনমজুরের জামাল শিকারীর লাশ অভিনব কায়দায় প্রতারণার মাধ্যমে জমি লিখে নিলেন দেলোয়ার হোসেন ও কফিল উদ্দিন নামের দুই শিক্ষক বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা অজিত রঞ্জন বড়ুয়া কে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক রাষ্ট্রীয়ভা‌বে গার্ড অব অনার দেওয়া হয় ৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪১ হাজার ৯০০ কোটি টাকা – সংসদে অর্থমন্ত্রী ডিএমপির অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার ৬৪ মাদকসহ আসামী ছিনিয়ে নেয়া সেই যুবলীগ নেতা র‍্যাব-৩ হাতে গ্রেফতার
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নকে চেয়ারম্যান অনিয়ম-দূর্নীতির আতুর ঘর তৈরি করেছেন ইউনিয়নকে

Reporter Name

স্টাফ রিপোর্টার নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের “নৌকা বিরোধী”চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম রানা বার বার অনিয়ম-দূর্নীতি করে ছাড় পেয়ে যাচ্ছে কীভাবে? এই প্রশ্ন এখন পূর্বধলাবাসীর। বিগত দিনে চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ উঠে,এবং অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় সরকারি কোষাগারে টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয়।

কিন্তু প্রশাসন তার বিরুদ্ধে বড় ধরনের কোন পদক্ষেপ আইনানুগ ভাবে নেয়নি।চেয়ারম্যান রানার অনিয়ম দূর্নীতি তে অতিষ্ঠ ঘাগড়া ইউনিয়নবাসী।জনগণের ভোটে নির্বাচি ত চেয়ারম্যান জনগণের জন্য যে সেবা দেওয়ার কথা বলেছিলেন,তা তিনি ভূলে গিয়ে নিজ ধান্দায় অর্থ আত্মসা ৎ করায় এখন মেতে উঠেছেন। ইউনিয়ন বাসী জানায় যে তার কাছে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের দেখতেছি বলে পাঠিয়ে দিয়ে আর কোন পড়ে খোঁজ নেয়না।

সে ইউনিয়নের জনগণের ফোন ধরেনা টাকা ছাড়া কোন দরকার করেনা। যানা যায় বিভিন্ন জমি সংক্রান্ত দরবারের টাকা এখন তার কাছে মানুষ পায়। একজন মুক্তিযোদ্ধার ধান কোটে এনে সে আত্মসাৎ করেছে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন জনের কাছ কল দেওয়ার কথা টাকা নিয়ে এখন টিউবও য়েল দিতে পারে না এমন অভিযোগ অনেক আছে।

কিছু আগেও এই বিষয়ে তাকে আটক করায়,গোপনেলল দরবার ললহওয়ায় কলের টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয় দুইজনের।পড়ে টাকা তার পিয়েসকে দিয়ে পাঠায় দিয়ে আসার জন্য।গোপন সুত্রে আরও জানাযায় চেয়ারম্যান হাওয়ার পড়েই সে নেশা আর জুয়া খেলায় আসক্ত প্রতি দিন সরকারি অনুদানের উন্নয়নের নির্ধারিত অর্থের বাজেট অনুযায়ী কাজ না করে,অনিয়ম দূর্নীতির মাধ্যমে বাকী টাকা আত্মসাৎ নেশা আর জুয়া খেলায় মেতে থাকে প্রতিদিন যার সাক্ষী সারা ইউনিয়নবাসী।সে বিগত দিনে এবং বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়িতে হামলা চালায়, এই বিষয়ে তার

থানায় মামলা হয়েছে তার কর্মকাণ্ডে মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষিপ্ত চেয়ারম্যানের বিভিন্ন কাজের ভাগবাটোয়ারা নিয়ে ইউনিয়ন সকল মেম্বারদের সাথে তার বিরোধ চলছে যানা যায়। বিভিন্ন জনের কাছ থেকে যানা যায় তিনি জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন জনগণ ভোট দিয়ে এমন জনপ্রতিনিধি বানিয়ে এখন অনুতপ্ত মনে করছেন অনেকেই।

চেয়ারম্যানের এমন কর্মকান্ডের বিষয়ে উপজেলা প্রশাসনের কাছে জানতে চাওয়া হলে, তারা জানান লিখিত অভিযোগ পেয়েছে তদন্তের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ হওয়ায়, যোগাযোগ করতে চাইলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি।

সত্য উদঘাটন করে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হোক এই দুর্নীতিবাজ চেয়ারম্যানের কারণে বর্তমান সরকারের বদনাম।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার বলেছিল কোন দুর্নীতিবাজ বাংলার মাটিতে দুর্নীতি করে ছাড় দেওয়া যাবে না।প্রত্যেক দুর্নীতিবাজ বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে সে যত বড় ক্ষমতাশীল ব্যক্তি হোক না কেন তাকে আইনের আওতায় আসতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page