March 2, 2024, 4:55 pm
শিরোনামঃ
৭ মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক লাখ ৪১ হাজার ৯০০ কোটি টাকা – সংসদে অর্থমন্ত্রী ডিএমপির অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার ৬৪ মাদকসহ আসামী ছিনিয়ে নেয়া সেই যুবলীগ নেতা র‍্যাব-৩ হাতে গ্রেফতার ময়মনসিংহে ডিবির অভিযানে ৬০ বোতল ভারতীয় মদসহ গ্রেফতার জাজিরায় জাতীয় ভোটার দিবস পালিত ডিআরইউ’র প্রয়াত সদস্য পরিবারকে মাঝে বীমার চেক হস্তান্তর ও অসুস্থ সদস্যদের চিকিৎসা অনুদান প্রদান ঢাকা বার নির্বাচনে সভাপতি-সম্পাদকসহ ২১ পদে আওয়ামী লীগের জয় জাজিরায় রাতের আধারে একজনকে কুপিয়ে হত্যা জাতীয় বীমা দিবস ২০২৪ ও উপলক্ষে র‍্যালি, আলোচনা সভা ও চেক বিতরণ জাজিরায় গোয়াল ঘরে আগুনে পুড়ল গরু-ছাগল, বাঁচাতে গিয়ে দগ্ধ কৃষক
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

প্রশাসনের অগোচরে অবৈধ বালু উত্তলোনে মহোৎসব

Reporter Name

সুলতানা রাজিয়া সান্ধ্য কবিঃমুক্তিযুদ্ধ ৭১ সংবাদ পত্রিকা: সিনিয়র রিপোর্টার।

উলিপুরের বেগমগঞ্জ ইউনিয়নে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের মহোৎসবে মেতে উঠেছে কিছু কুচক্রি মহল।ব্রম্ম্যপূত্র নদীর তীরে ডোবায় ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবাধে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।সরেজমিন উপজেলা উলিপুর বেগমগঞ্জ ইউনিয়ন ও বুড়াবুড়ী ইউনিয়ন সীমান্তবর্তী হেলপেসুর চর নামে সুপরিচিত স্থানটির উত্তরপার্শ্ব নির্বিকারে বালু উত্তোলনের চিত্র দেখা গেছে।

এখানে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের মহোৎসব চালিয়ে যাচ্ছে বুড়াবুড়ী ইউনিয়নের ফকির মহম্মদ মৌজার মোঃ মফজল হক পিং আব্দুস সামাদ তার কিছু সঙ্গ-পঙ্গ নিয়ে।
বিভিন্ন জনের বাড়ি উচু করে দেওয়ার উদ্দেশ্যে বালু উত্তোলনের এ মহোৎসব।জানা যায় প্রতি ১শতক জমি ৭০০০/৮০০০ টাকা করে নেয়া হচ্ছে এভাবে ৫ একরের চুক্তিপত্র হয়েছে বলে জানা যায়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান,এভাবে নদীর নিকটস্থ খালে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে দীর্ঘদিন ধরে নির্বিকারে বালু উত্তোলন করে চলছে।এতে বিভিন্ন স্থানে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হচ্ছে,একই সংগে কৃষিজমি ও বসত ভিটাও পড়েছে হুমকির মুখে।পাশা পাশা অতিষ্ট হয়ে পড়েছে আশে পাশের মানুষেরা।
অসাধু বালু ব্যবসায়িরা ক্ষমতাসীন ব্যক্তি তাই এলাকার কৃষকের মাঝে ভীতির সঞ্চার হয়ে চুপ করে রয়েছেন তারা।

সংবাদকর্মীকে দেখলে কৃষক-কৃষাণীরা বলেন,
বন্যা শেষ হওয়ার পরে ভেসে উঠা জমিগুলোতে আমরা মৌসমী ফসল ফলার চাষাবাদ করছি করলা,পোটল,বিভিন্ন মৌসুমি ফসলের প্রস্তুতি নিচ্ছি বা কিছু ফসল রোপন করার কাজ চলছে।ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোনের কারণে,যদি ফসলি জমি আগেইভেঙ্গে গর্তে চলে যায় বা নদীতে চলে যায় তাহলে আমরা গরীব কৃষক কিভাবে জীবিকা নির্বাহ করবো।এই মর্মে প্রশাসনের কাছে তারা আকুল আবেদন জানিয়াছেন তারা।বালু উত্তোল নের ড্রেজার মেশিনটি এখান থেকে সরিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা করে গরিব কৃষক-কৃষাণীদের জমি রক্ষা করার ব্যবস্থা করা হোক।

উলিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শোভন রাংসা এর সংগে মুঠোফোনে কথা বলে জানিয়েছি তিনি বলেছেন বিষয়টি এর আগে আমাদের কেউ জানায়নি লোকেশন সহ ছবি চেয়েছেন এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

উলিপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুজ্জামানের সংগে ফোনে যোগাযোগ করা হলে।তিনি জানিয়েছেন,আমাদের এটা দেখার কোন একতিয়ার নেই এগুলো দেখার ভূমিকর্মকর্তার একতিয়ার।তবে যদি ইউএনও স্যার বলেন তাহলে আমরা দেখবো বিষয়টি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page