June 15, 2024, 12:50 am
শিরোনামঃ
এ জগৎ ভাই অল্প দিনের আর কয়টা দিন সবুর মনে প্রাণে বিশ্বাস করো কঠিন সাজা প্রভূর সংসদ সদস্য মোহিত উর রহমান শান্ত”র জন্মদিনে ইউসুফ আলীর শুভেচ্ছা ঈদ যাত্রা নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে সবাই এক সঙ্গে কাজ করছে : আইজিপি ত্রিশাল থানা পুলিশের অভিযানে ,দস্যুতা কাজে ব্যবহৃত ০২ টি প্রাইভেট কার জব্দ সহ সহ ০৬ জন গ্রেফতার ডিবি পুলিশের অভিযানে ময়মনসিংহে চোরাই ৬টি অটোরিক্সা ও ১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার গ্রেফতার ১ পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করায় দেশে স্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে : আইজিপি ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত ছাদ থেকে পড়ে প্রাণ গেল শিশু হজযাত্রীর ভূরুঙ্গামারীতে মাদক মামলায় মিথ্যা আসামি করায় থানার ওসি ও তদন্ত ওসিকে প্রত্যাহারের দাবী পরিবারের পুলিশ কমিশনারের সাথে ডিএমপির বিভিন্ন বিভাগের প্রধানদের এপিএ স্বাক্ষর
নোটিশঃ
আপনার আশেপাশের ঘটে যাওয়া খবর এবং আপনার ব্যবসার বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন মানবাধিকার খবরে।

শহরে বসতবাড়ি থেকে ৬ লক্ষ টাকার স্বর্ণ ও নগদ অর্থ লুট

Reporter Name

বার্তা পরিবেশক :কক্সবাজার শহরের রুমালিয়ারছরা মিনহাজ উদ্দিন বাড়ি থেকে ৬ লক্ষ টাকার স্বর্ণ ও নগদ অর্থ লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে বাবু ও তুহিনের বিরুদ্ধে।গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে এই ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বাবু ও তুহিনের নেতৃত্বে ৩/৪ জন সংঘবদ্ধ অপরাধী দল মিনহাজের পরিবারের সদস্যদের অনুপস্থিত বাড়ির জানালা ভেঙে বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে। তারা আলমারি ভেঙে নগদ অর্থ স্বর্ণ অলংকার চুরি করে নিয়ে যায়। যা পরিমান ৬ লক্ষ টাকা।

এরপর বিভিন্ন মাধ্যমে তাদের সনাক্ত করি তারা হলেন চুর বাবু (১৯) সে গোদারপাড়া আনোয়ার ড্রাইভারের ছেলে ও অপরজন গরু হালদা এলাকার তুহিন (২২) সে ঐ এলাকার মমতাজুল ইসলামের ছেলে। ইতোমধ্যে বাবু ঘটনা সঙ্গে জড়িত বলে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কাছে স্বীকারও করেছেন। এব্যাপারে সদর থানার একটি এজেহার দায়ের করেছেন মিনহাজ।

সেখানে উল্লেখ করা হয়, গত ১৯ অক্টোবর সন্ধ্যা ৮ টার সময় বাড়ি থেকে শপিং এর উদ্দেশ্য বের হই। পরে রাত সাড়ে ৮ টার সময় বাড়ীতে ফিরে দেখি সুয়ার ঘরের ভিতরে স্টিলের আলমারিতে থাকা বিভিন্ন মালামাল এলোমেলো ও ছড়ানো ছিটানো অবস্থা দেখি।

পরে আমি ও আমার স্ত্রী স্টিলের আলমিরা ভেঙ্গে ৫ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার নগদ প্রায় ২ লক্ষ টাকাও ১টি স্যামসং অ্যান্ড্রয়েড ফোন ১টি বাটন ফোন নিয়ে যায়।

পরে তাৎক্ষনিক বিষয়টি স্থানীয় কাউন্সিলরকে জানালে তিনি থানায় ফোন করে পুলিশকে অবগত করে বাবু কে আটক করে। পরে সে মালামাল লুটের বিষয়টি স্বীকার করে বলে সে মালামাল গুলো তুহিন সহ অজ্ঞাত ৪/৫ কাছে জমা রাখে বলে স্বীকারোক্তি দেয়।

পরে সেগুলো ফের দিবে বলে বাবু আশ্বাস দেন। কিন্তু ঘটনার কয়েকদিন অতিক্রম হয়ে গেলেও সে লুট হওয়া মালামলা উদ্ধার হয়নি। উল্টো আরও নানা তালবাহানা শুরু করে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ধামকি দিয়ে আসছে উল্লেখ আসামিরা।

এমন অবস্থা সংশ্লিষ্ট পুলিশ প্রশাসনের কাছে লুট হওয়া মালামাল উদ্ধার সহযোগিতা কামনা পাশাপাশি এই ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page